ইসলামি শরিয়তের সুন্নত,মুস্তাহাব ও মুবাহ সম্পকে জেনে নিন

Posted on

আসসালামু আলাইকুম । আশা করি সকলে ভালো আছেন । আমিও আলহামদুলিল্লাহ আপনাদের দোয়ায় অনেক ভালো আছি । যাই হোক আমি বেশি কথা বাড়াতে চাই না সরাসরি পোস্টের কথাতে চলে আসতে চায় ।

অনেকেই হয়তো পোস্টের টপিক দেখেই বুঝে ফেলেছেন যে আজ আমি কোন বিষয় নিয়ে লিখতে যাচ্ছি । আজ আমি আপনাদের সাথে ইসলামি শরিয়তের সুন্নত,মুস্তাহাব ও মুবা নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি । আশা করি সকলে আমার আজকের পোস্ট পড়বেন । ভালো লাগলে লাইক এবং কমেন্ট করবেন ।

এর আগে আমি ফরজ ও ওয়াজিব সম্পকে একটি পোস্ট করেছিলাম । আপনার চাইলে এখানে ক্লিক করে পোস্টটি পড়তে পারেন ।

সুন্নাত :- সুন্নাত অথ পথ,রীতি, নিয়ম বা পদ্ধতি ।ইসলামি পরিভাষায় মহানবি (স) থেকে যে সমস্ত কাজ ইসলামি শরিয়তের বিধান হিসেবে নিধারিত হয়েছে সেগুলোকে সুন্নাত বলে । অথাৎ যে সকল কাজ মহানবি (স) নিজে করেছেন এবং অন্যকে করার নিদেশ দিয়েছেন ও অনুমোদন দিয়েছেন তাকে সুন্নাত বলা হয় । সুন্নাত মূলত দুই প্রকার । যথা :-
১। সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ এবং ২। সুন্নতে যায়িদাহ ।

সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ :-
যে সকল কাজ মহানবি (স) নিজে সবদাই পালন করতেন এবং অন্যদেরকে তা পালনের তাগিদ দিতেন তাকে সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ বলে । যেমন :- আযান দেওয়া,ইকামত দেওয়া,ফজরের নামাযের পূবে দুই রাকাত,যোহরের ফজরের নামাযের আগে ৪ ও পরে দুই রাকাত এবং মাগরিব ও এশার ফরজের পরে দুই রাকাত নামায আদায় করা সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ ।

সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ ওয়াজিবের কাছাকাছি । এগুলো ইচ্ছাকৃতভাবে বা বিনা কারণে এগুলো পালন না করলে গুনাহ হয় ।

সুন্নতে যায়িদাহ :-
সুন্নতে যায়িদাহ অথ হলো অতিরিক্ত সুন্নত । এ ধরনের কাজ মহানবি (স) করতেন তবে মাঝে মধ্যে ছেড়ে দিতেন । এ ধরনের কাজ করার জন্য মহানবি (স) উম্মতকে উৎসাহিত করতেন । এধরনের কাজে কাজ না করলে গোনাহ হয় না । তবে আদায় করে প্রচুর সওয়াব অজন করা যায় । যেমন :- আসর ও এশার ফরজ নামাযের পূবে ৪ রাকাত নামায আদায় করা । সুন্নাতে যায়িদাহকে আবার সুন্নতে গায়রে মুয়াক্কাদাও বলে ।

মুস্তাহাব :- মুস্তাহাব শব্দের অথ হলো পছন্দনীয় । এসকল কাজ কলে গুনাহ হবে না তবে সওয়াব পাওয়া যাবে । এ ধরনের কাজ করতে মহানবি (স) উৎসাহিত করেছেন ।

ফরজ,ওয়াজিব,সুন্নত ব্যাতীত অতিরিক্ত সব ধরনের ভালো কাজ মুস্তাহাব হিসেবে ধরা হয় । এ কাজকে নফলও বলা হয় ।

মুবাহ :- যে সমস্ত কাজ করলে সওয়াব হয় না আবার গোনাহও হয় না তাকে মুবাহ বলে । কেউ চাইলে এ ধরনের কাজ করতে পারে আবার কেউ ইচ্ছা করলে তা নাও করতে পারে ।

তো এই ছিল আমার পক্ষ থেকে । আজ এ পযন্তই । আশা করি সকলের ভালো লেগেছে । পরবতীতে ভালো ভালো আটিকেল আপনাদের সাথে শেয়ার করার চেষ্টা করব । পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ ।

The post ইসলামি শরিয়তের সুন্নত,মুস্তাহাব ও মুবাহ সম্পকে জেনে নিন appeared first on Trickbd.com.

Source:

Leave a Reply

Your email address will not be published.