কিভাবে মোবাইল দিয়ে অনলাইনে আয় করবেন

Posted on

 আশা করি সকলে ভালো আছেন। আজকে আপনাদের বলব কিভাবে আপনার হাতে থাকা ছোট এই মোবাইল ফোন দিয়ে আয় করবেন। আমরা অনেকেই শিক্ষার্থী । আবার অনেকেই আছে বেকার। অনেকেই অর্থ সংকটে কম্পিউটার বা ল্যাপটপ কিনতে পারেন না। কিন্তু তাদের ইচ্ছা থাকে নিজে কিছু রোজগার করার জন্য নিজের খরচ জোগাড় করার।



তাই তারা আয় করার জন্য ফেসবুক এবং ইউটিউব এ ভিডিও এবং পোস্ট দেখে। ইউটিউব এ বেশিরভাগ স্ক্যাম বা প্রতারণামূলক ভিডিও দেওয়া হয়।এ ক্ষেত্রে অনেক মানুষ প্রতারণার শিকার হয়। আবার ফেসবুক এ বিভিন্ন জব পোস্ট দেখা যায়। এগুলো বেশিরভাগ অকাজের পোস্ট । এগুলো আয় হতেও পারে আবার নাও হতে পারে।

তাই আজকের এই আর্টিকেল এ আমরা জানবো কিভাবে মোবাইল ব্যবহার করে আয় করবেন।এই ছোট আর্টিকেল হতে পারে। তো চলুন শুরু করা যাক:-

১. আর্টিকেল লিখে আয় করা।

বর্তমানে মোবাইল দিয়ে আয় করার সবচেয়ে শক্তিশালী কাজ হলো আর্টিকেল লিখে আয়। পুরো পৃথিবীর প্রায় ৫০ থেকে ৬০% ব্লগার এই কাজের সাথে যুক্ত। আপনি বিভিন্ন বিষয়ের উপর আর্টিকেল লিখে আয় করতে পারেন। যেমন: ভ্রমণ বিষয়ক, খাদ্য বিষয়ক, মোবাইল রিভিউ ইত্যাদি বিষয়ের উপর আর্টিকেল লিখে আয় করতে পারবেন। আপনি আপনার লেখা আর্টিকেল মার্কেটপ্লেস গুলোতে বিক্রি করতে পারেন। এতে আপনি মোটামুটি একটা টাকা আয় করতে পারেন। এর জন্য আপনার সাধারণ জ্ঞানের উপর ধারণা থাকতে হবে।

২. ডিজিটাল মার্কেটিং করে আয়।

আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং করে আয় করতে পারেন। ডিজিটাল মার্কেটিং এর ৪০-৫০% কাজ মোবাইল দিয়ে করা যায়। তাই আপনি পুরোপুরি কাজ শিখে মার্কেটপ্লেস নামতে পারেন। যদি আপনার কাছে একটি ভালো মোবাইল ফোন থাকে। এতে ও আপনি আয় করতে পারেন। ছোট বিভিন্ন কাজ করতে পারবেন।

৩. সৌশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করে আয়।

আপনি এই কাজটি মোবাইল দিয়ে করতে পারবেন। এর মধ্যে কয়েকটি মাধ্যম হলো ফেসবুক মার্কেটিং, ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং ইত্যাদি। তাছাড়া আপনি সৌশ্যাল মিডিয়া এ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে কাজ করে আয় করতে পারবেন। যা মোবাইল দিয়ে করা যায়। মূলত  আপনি তাদের ফেসবুক পেজ বা গ্রুপ এর নিয়ন্ত্রণ করবেন এবং তাদের কাস্টমারদের সাহায্য করবেন এর বিনিময়ে তারা আপনাকে সেলারী দিবে 

৪. Affiliate marketing বা প্রোমোশন করে আয়।

আপনি affiliate marketing and sales করে আয় করতে পারেন। আপনি ব্লগ থাকে এবং ব্লগ এ প্রচুর পরিমাণে ট্র্যাফিক থাকে তাহলে আপনি কোম্পানি বা সাইটের দেওয়া লিংক থেকে তাদের পন্য বিক্রি করে কিছু কমিশন পেতে পারেন। এটা হলো আপনার মোবাইল দিয়ে আয়। তাছাড়া আপনি সৌশ্যাল মিডিয়া গিয়ে তাদের দেওয়া লিংক থেকে পন্য বিক্রি করতে পারেন। তাই আপনাকে সৌশ্যাল মিডিয়ায় এ্যাক্টিভ থাকা লাগবে। এখান থেকে আপনি আয় করতে পারবেন।

 

৫. গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আয় করা।

আপনারা হয়তো সকলে জানেন মোবাইল দিয়েও ছোটখাটো গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজ যায়। এর জন্য আপনার লোকাল ক্লায়েন্ট এর সাথে যোগাযোগ রাখা প্রয়োজন। মোবাইল দিয়ে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর জন্য আপনি Canva, picsay art, pixellab ইত্যাদি এপ ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি ব্যানার ডিজাইন, Thumbnail ডিজাইন ইত্যাদি কাজ করতে পারবেন। এতে আয়ের একটি মাধ্যম তৈরি হয়ে গেল। তাই ইউটিউব এ ভিডিও টিউটোরিয়াল দেখে কাজ শিখতে পারেন।

৬. ফটোগ্রাফি করে আয়।

আপনি যদি ভালো ফটোগ্রাফী করতে পারেন তাহলে এটি হতে পারে আপনার আয়ের উৎস। আপনি আপনার তোলা অসাধারন ফটো গুলো বিক্রি করতে পারেন। এমন অনেক মার্কেটপ্লেস আছে যেখানে আপনি আপনার তোলা ফটো গুলো বিক্রি করতে পারবেন। এটা নিয়ে একটা বিস্তারিত আর্টিকেল আসছে।

৭. ভিডিও ইডিটিং করে আয়।

আপনার যদি ভালো ইডিটিং পারেন তাহলে আপনি ভিডিও ইডিট করে আয় করতে পারেন। বর্তমানে এর চাহিদাও প্রচুর। তাছাড়া ইউটিউব এ ও অনেকেই ভিডিও ইডিট করে তা হাস্য রসাত্মক করে আপলোড করে থাকে এবং তা থেকে টাকা আয় করে। চাইলে আপনিও করতে পারেন আয়।

আশা করি আজকের এই আর্টিকেল এ আপনাদের একটু কিছু হলেও বোঝাতে পেরেছি। কিছু না বুঝলে মন্তব্য করুন। আর অবশ্যই ইউটিউব ভিডিও দেখে প্রতারিত হবেন না এবং নিজের অর্থ ও সময় নষ্ট করবেন না। ইউটিউব এ বেশিরভাগ ভিডিও কাজের না।

মোবাইল দিয়ে আয় করার আরো মেথহুড খুজে পেলে এই লিস্টে এড করে দিব ততক্ষণ পর্যন্ত ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন সবসময়।

 

আর গেমিং আপডেট পেতে এবং মোড এপস পেতে ঘুরে আসুন আমাদের Gaming Blog ধন্যবাদ।

Related Keyword:- Best Way How To earn money online, কিভাবে মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করব, মোবাইল দিয়ে কি টাকা আয় করা যায়, মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করা সম্ভব, আমি কিভাবে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করব, মোবাইল দিয়ে কিভাবে প্রতিদিন ১০০ টাকা আয় করা সম্ভব।

The post কিভাবে মোবাইল দিয়ে অনলাইনে আয় করবেন appeared first on Trickbd.com.

Source:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *