কিয়ামতের আলামত ? বর্তমান যুগের সাথে মিল পাচ্ছে?

Posted on

আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ। বর্তমান যামানায় আমরা অনেকেই কিয়ামতের কথা ভুলে গিয়েছি। এই পৃথিবী বর্তমানে এত সৌন্দর্য চাহিদাসম্পন্ন ও অনলাইন মুখি। পৃথিবীর এই সৌন্দর্য আমাদেরকে ধোকায় ফেলে রেখেছে।

মাথায় আছে তো আপনার আমাদের নবী শেষ নবী। কেয়ামত পর্যন্ত তার পড়ার কোন নবী পৃথিবীতে আগমন করবে না।দিন দিন কিয়ামত আমাদের সামনে আসছে আর আমরা ভাবছি অনেক দূরে রয়েছে কিয়ামত।আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর ভবিষ্যৎ বাণী নিয়ে আজকে আলোচনা করব কিয়ামত বিষয়ে।

ভণ্ড নবীর আগমন ঘটবে। আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন আমার পরে 30 জন ভন্ড নবী আগমন করবে।এমনকি আমাদের প্রিয় নবী মুহাম্মদ রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর যুগে একজন নবী দাবি করেছিল।

আমাদের নবী শেষ নবী তারপর আর কোন নবী পৃথিবীতে আগমন করবে না। কিন্তু বর্তমান সময়ে ভারতে বড় এক ভন্ড নবীদের বের হয়েছিল। এমনকি আমাদের বাংলাদেশেও এই ধরনের লোক দেখা মিলেছিল। এই তথ্যগুলো আপনারা ইউটিউবে সরাসরি সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন।

উপরোক্ত আলামত কিয়ামতের আলামত হিসেবে ধরা হয়েছে। যেটা সরাসরি আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নিজে ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন। যেটা কিনা বর্তমান যুগে প্রকাশিত হয়েছে।পরিশেষে আমরা বলতে পারি কেয়ামত আমরা যতটা দূরে ভাবি ততটাই কাছে। এই হাদীসটি আপনারা পাবেন বুখারী শরীফে, আবু দাউদ শরীফ, এবং তিরমিজি শরীফের কিতাবুল ফিতান অধ্যায়ে।

আমানতের খেয়ানত হবে। এই আলামত টি কেয়ামত হওয়ার পূর্বে প্রকাশ পাবে ব্যাপক পরিমাণে। মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন খুবই সতর্ক করেছেন আমানতের খেয়ানত নিয়ে। আমানতের খেয়ানত করলে কবিরা গুনাহ হয়। কিন্তু কেয়ামতের পূর্বে প্রচুর পরিমাণে বৃদ্ধি পাবে আমানতের খেয়ানত।

আমাদের নবী বলেছেন শেষ জামানার লোকেরা আমানতের খেয়ানত করবে। কেউ একটা আমানত রাখলে সেটা খেয়াল করতে বর্তমানে পারেনা এমন কোন লোক নেই। কেউ বলে আগামীকাল আমি মসজিদের টাকাটা দিয়ে দিব। কিন্তু সেই আমানত সে রাখতে । এ ধরনের লোক বাংলাদেশে প্রচুর পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে।

নবীর ভবিষ্যদ্বাণীগুলো যেহেতু একে একে সবই মিলে যাচ্ছে,,, সেহেতু আমরা নিঃসন্দেহে বলতে পারি কেয়ামত খুব দূরে নয়। বরং যত দূরে আমরা কিয়ামত ভাবছি ঠিক ততটাই কাছে রয়েছে কেয়ামত।তবে সঠিক তথ্য একমাত্র মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনই ভাল জানেন।

আমানতের খেয়ানত হবে এই আলামতই আপনারা পাবেন,,,, বুখারী শরীফের কিতাবুল ফিতান অধ্যায়ে।

মুসলমানরা শিরকের পর্যায়ে চলে যাবে। এই আলামত টি বর্তমান সময়ে আমরা দেখতে পারছি। অনেক মানুষ কবরে চুমু দেয় সিজদা করে এমন কি কবরে কান্নাকাটি করে। এগুলো সম্পূর্ণ শিরকের পর্যায়ে চলে যায়। আমাদের নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ওই যুগে মানুষেরা শিরকের সাথে যুক্ত হবে।

যতক্ষণ না তারা শিরকের সাথে লিপিবদ্ধ হবে ততক্ষণ কিয়ামত সংঘটিত হবে না। নবী সাল্লাল্লাহু আলাই সাল্লাম বলেছেন তোমার ভিতরে যদি শিরক মুক্ত ঈমান থাকে তাহলে অবশ্যই তুমি একদিন জান্নাতে হবা। তাহলে আপনি ভাবুন তো আলামতে কতটা ভয়ঙ্কর।

এ আলামত থেকে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন যেন আমাদেরকে বাঁচিয়ে রাখে আমিন। তাহলে আমরা এই আলামত থেকে স্পষ্ট ধারণা পাচ্ছে নবীর ভবিষ্যৎবাণী প্রকাশ পেয়েছে। এবং কেয়ামত নিকটবর্তী হয়ে গিয়েছে অনেক। যেটা আমরা অনেকে এখনো পর্যন্ত ভাবিও নি।

সময় দ্রুত চলে যাবে। আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ কেয়ামতের পূর্বে সময় দ্রুত চলে যাবে। যতক্ষণ না সময় দ্রুত চলে যাবে ততক্ষণ কিয়ামত সংঘটিত হবে না। এমনকি এক বছর কি মনে হবে তিরিশ দিন। একমাস কি মনে হবে এক সপ্তাহের সমান।

এভাবে করে দিন যেতেই থাকবে। এত দ্রুত সময় দিনগুলো কেটে যাবে আমরা বুঝতেও পারবো না। মনে হবে বছর যেন বছরের মতো যাচ্ছে না। মাস মনে হবে মাসের মতো যাচ্ছে না। মনে হবে সপ্তাহ সপ্তাহের মতো যাচ্ছে না। এ হাদীসটি তিরমিজি শরীফের রয়েছে।

ঘন ঘন বাজার হবে। এ আলামত এর অর্থ হল: অল্প সময়ে মানুষ বাজারের যাতায়াত করতে পারবে। আমাদের নবীর এই আলামত টি সেই যুগে বলেছিলেন । সেই যুগে তো এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে অনেকটা সময় লাগতো।এই আলামতে প্রকাশ পেয়েছে যেটা আমরা বর্তমানে দেখতেই পারছি।

বর্তমান যুগে সকল কাজকর্মগুলো আমরা ডিজিটাল ভাবে করি । আগের যুগে ছিল না কোন মোটরসাইকেল গাড়ি পেলেন ইত্যাদি সহ আরো নানা রকম যানবাহন। কিন্তু বর্তমান যুগে হাজার হাজার রকমের যানবাহন রয়েছে। যেগুলোর সাহায্যে আমরা যেখানে-সেখানে খুব অল্প সময়ে যেতে পারি।

কিয়ামতের ছোট আলামত হিসেবে এই আলামত প্রকাশ পেয়েছে। এমনকি আমাদের পিয় নবী ভবিষ্যদ্বাণী গুলো বর্তমানে সবগুলো প্রকাশিত হয়ে যাচ্ছে। আলহামদুলিল্লাহ।

এই হাদীসটি আপনারা পাবেন মুসনাদে আহমদে। পরিশেষে বন্ধুরা আজকের এই আর্টিকেলটিতে এই পর্যন্তই। যদি আর্টিকেলটি ভালো লাগে অবশ্যই একটি লাইক করবেন। এবং কমেন্ট করে জানাবেন আপনার মতামত।
আমরা যেন সকলেই ঈমানের সাথে মৃত্যু বরণ করতে পারি সে তৌফিক আল্লাহ তুমি দান করে দিও আমিন।

সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং আল্লাহর আদেশ নির্দেশ এবং নবীর সুন্নত মেনে জীবন কাটাবেন। এ আশা ব্যক্ত করে আজকের মত বিদায় নিচ্ছি,,, আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ।

The post কিয়ামতের আলামত ? বর্তমান যুগের সাথে মিল পাচ্ছে? appeared first on Trickbd.com.

Source:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *