বিশ্বে জনসংখ্যার সাথে সাথে মোবাইল ব্যবহারকারীও বাড়ছে। পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার ৯০% এর বেশি মানুষ এখন মোবাইল ব্যবহার করে। যদিও এই সংখ্যা পুরোপুরি সঠিক না কারন অনেকেই কয়েকটা ফোন ব্যবহার করে। যাইহোক আজ আমি আপনাদের বলবো কিভাবে আপনার নিজে মোবাইল রিপেয়ারিং শিখবেন।

মোবাইল রিপেয়ারিং কি?

মোবাইল রিপেয়ারিং মুলত পুরাতন ফোনের কোন সমস্যা বা কোন কিছু আপডেট করাকে বোঝায়। প্রতিটা ফোন কোন এক সময় এসে সমস্যায় পড়ে অথবা আমরা ভুলবশত ফেলে স্ক্রিন বা অন্যান্য জিনিস ভেঙ্গে ফেলি যখন আমাদের ফোন রিপেয়ারিং এর প্রয়োজন হয়। আর এই ফোন ঠিক করাকেই মোবাইল রিপেয়ারিং বা ঠিক করা বলা হয়।

মোবাইল রিপেয়ারিং করবেন নাকি নতুন ফোন কিনবেন?

যুগের সাথে সাথে তাল মিলিয়ে প্রতিটা মোবাইল ফোন কোম্পানিই প্রতিদিন নতুন নতুন টেকনোলজি ব্যবহার করছে যার কারনে মোবাইল ফোনের দাম বেড়েই চলেছে। যদিও সস্তা ফোনও বাজারে পাবেন। মোবাইল ফোন ঠিক করার ক্ষেত্রে আপনাকে বেশ কিছু জিনিস মাথায় রাখতে হবে।

  • নতুন ফোনঃ নতুন বা কিছুদিন ফোন ব্যবহার করার পর অনেক সময় অসাবধানত ফোন পড়ে যায় যাতে করে এর স্ক্রিন বা বডির সমস্যা হতে পারে। এক্ষেত্রে আপনি আর ওয়ারেন্টি পাবেননা। তখন আপনাকে মোবাইল ফোন রিপেয়ারিং করতে হবে। এক্ষেত্রে আপনি অবশ্যই কিছুটা লাভ করবেন।
  • পুরাতন দামি ফোনঃ একটা ফোন এক বছর বা কয়েকবছর খুব ভালোভাবে ব্যবহার করা যায়। এক্ষত্রে যদি কোন সমস্যা দেখা দেয় তখন ঠিক করার ভাল।
  • যখন নতুনের থেকে ঠিক করা বেশি খরচঃ আপনি যদি আইফোনের পুরাতন মডেল গুলো ব্যবহার করেন আর যদি কোন সমস্যা হয় তবে বুঝবেন অনেক সময় ঠিক করার খরচ নতুন ফোন কেনার থেকে বেশি বা কাছাকাছি হয়ে যায়। যা আপনি হয়তো একদমই চাইবেন না।

কোথায় শিখবেন মোবাইল ফোন রিপেয়ারিং?

মোবাইল ফোন রিপেয়ারিং ঠিক দুইভাবে শেখা যায়। এক অফলাইনে আর দুই অনলাইনে। চলুন আমরা দুইভাবেই জেনে নিই।

অফলাইনে কোথায় শিখবেন ফোন রিপেয়ারিং?

অফলাইন বলতে আমরা বুঝি কোন দোকান বা কোচিং সেন্টার থেকে শেখা। আমার আশেপাশে আমি যত মানুষ দেখেছি তাদের বেশির ভাগই কোন কোন একসময় কারোর সাথে থেকে আস্তে আস্তে শিখেছে। আমি নিজেও কারোর সাথে ছিলাম এবং শিখছি এখনো। কারোর সাথে থেকে শেখার উপকার অপকার দুইটাই আছে। তবে আপনাকে নিজে খুজে নিতে হবে আপনি কারোর কাছ থেকে শিখবেন নাকি টাকা দিয়ে শিখবেন।

অনলাইনে কোথায় শিখবেন?

ইন্টারনেট একটি বিশাল বড় জায়গা। এখানে আপনি বাড়ি বসেই ফোন রিপেয়ারিং শিখতে পারেন। আপনি আপনাদের কয়েকটি ফ্রি এবং প্রিমিয়াম কোর্সের লিঙ্ক দিবো।

ইউটিউবঃ ইউটিউবে আপনি অনেক ভিডিও পাবেন ফোন রিপেয়ারিং করার জন্য এবং এর সব ভিডিও ফ্রি। তবে আপনাকে নিজে খুজে নিতে হবে। আলাদা প্রিমিয়াম কোর্সে যেমন চ্যাপ্টার হিসাবে দেয়া থাকে এখানে আপনি সেভাবে নাও পেতে পারেন। তবে আপনি যে বিষয়ে শিখতে চান সেই বিষয় নিয়ে খোজ করলেই অনেক ভিডিও পাবেন।

লিংকডইন লার্নিং

Linkedin নাম শোনেননি এমন লোক খুব কমই খুজে পাওয়া যাবে। আমরা সাধারনত জানি এটা সোস্যাল মিডিয়া সাইট এবং অনেকটা ফেসবুকের মত। কিন্তু এই লিংকডইন থেকে আপনি চাইলে যেকোন কিছু শিখতে পারবেন লিংকডইনের আলাদা একটা সাইট আছে যেটা আগে লিনডা নামে ছিলো পরে লিংকডইন কিনে নেবার কারনে এখন লিংকডইনের সাথে যুক্ত হয়ে গেছে। এখানে আপনি চাইলে প্রায় সব কিছু শিখতে পারবেন।

Rewa Technology :

রিয়া একাডেমি খুব নাম করা একটা প্রতিষ্ঠান। এরা মোবাইল ফোন রিপেয়ারিং পার্টস এবং টুলস সাপ্লাই করে থাকে তবে এদের আলাদা একটা প্রোগাম আছে শুধু মানুষকে শেখানোর জন্য। আপনি চাইলে আপনার যা কিছু প্রয়োজন মোবাইল ফোন রিপেয়ারিং শেখার জন্য তার সব কিছুই এখান থেকে পাবেন। তবে এদের কোর্স অবশ্যই ফ্রি না।

ইউডেমি

ইউডেমি নিয়ে আমরা প্রায় সবাই জানি। এটাও অনেকটা লিংকডইনের মত কিন্তু তুলনামুলক সস্তা। উডেমি থেকেও আপনি মোবাইল ফোন রিপেয়ারিং শিখতে পারবেন। এখানে আপনি অনেক টিউটোরিয়াল খুজে পাবেন যেগুলো অনেক ভালো মানের।

ইউটিউবঃ

ইউটিউব ব্যবহার করেননা এমন কাউকে হয়তো খুজে পাওয়া যাবেনা। আমরা সাধারনত ইউটিউবে সিনেমা নাটক বা গান শুনে সময় কাটায়। কিন্তু এই ইউটিউবে আপনি চাইলে প্রায় সবকিছুই শিখতে পারবেন। ফোন রিপেয়ারিং শেখার জন্য ইউটিউব সবচেয়ে ভালো জায়গা যদি আপনি নির্দিষ্ট কোন বিষয়ের উপর শিখতে চান। কারন এখানে কোন প্রিমিয়াম টিউটোরিয়াল (যেটাতে ধাপে ধাপে শেখানো হয়) পাবেন না। তবে আপনি যদি আগে থেকেই কিছুটা ফোন রিপেয়ারিং নিয়ে জেনে থাকেন তবে এখান থেকে অনেক কিছু শিখতে পারবেন।

iFixit.com

এটা এমন একটা ওয়েবসাইট যেটাকে স্বয়ং অ্যাপেল কোম্পানি ও পছন্দ করেনা কারন তারা অ্যাপলের সব ফোন কিভাবে ঠিক করা যায় শেখায়। এই ওয়েবসাইটে আপনি প্রচুর টিউটোরিয়াল খুজে পাবেন যেগুলো আপনার বাস্তব জীবনে ফোন রিপেয়ারিং করতে কাজে লাগাতে পারবেন।

অন্যান্যঃ

ইন্টারনেট যেমন বিশাল একটা জায়গা তেমনি এখানকার সব লিঙ্ক আমার পক্ষে দেয়া সম্ভব না। তবে আপনি চাইলেই গুগল থেকে সহজে খুজে বের করতে পারেন। আমি শুধু আপনাদের যেগুলো ভালো মানের সেগুলোই দেবার চেষ্টা করছি মাত্র। তবে প্রিমিয়াম কোন কোর্স কেনার সময় অবশ্যই কোর্সের মানের দিকে খেয়াল করবেন।

শেষকথাঃ

বর্তমানে মোবাইল ফোন রিপেয়ারিং ব্যবসা অনেক লাভজনক একটা ব্যবসা। তাছাড়া যারা ইলেকট্রনিক পড়ছেন তারাও এসব জায়গা থেকে অনেক কিছু শিখতে পারেবন।

আশা করি আমার লেখাটি ভালো লাগবে। আর ভালো লাগলে অবশ্যই বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। ভালো থাকবেন আর কোন সমস্যা থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

The post কোথায় এবং কিভাবে শিখবেন মোবাইল রিপেয়ারিং? ফ্রি এবং প্রিমিয়াম appeared first on Trickbd.com.

Source: