আমজনতার মধ্যে অংক ভীতি নেই। তা বলাই বাহুল্য। খুব মনে আছে, ছোটবেলায় নামতা শিখেছি কত কাঠখড় পুড়িয়ে। তারপর তো পাটিগণিত, বীজগণিত, জ্যামিতি জীবনে হেয় করার জন্য সবসময় প্রস্তুত ছিল। অংককে জীবনের অভিশাপ মনে করে কত যে ব্যাথার দিন পার হয়েছে।
বাংলা, ইংরেজি, সমাজ, বিজ্ঞান কঠিন হলেও অংকের মতো রসকষহীন ছিল না।অংকে যে আনন্দ আছে তা উপলব্ধি কখনোই হয়নি।

অবশ্য অংকের কি দোষ! আমাদের শেখানোর মাধ্যম গুলো তো আরো রসকষহীন। প্রশ্ন করা যাবে না,এই নিয়মের বাইরে অংক হবে না,ইত্যাদি ইত্যাদি……
যাই হোক সেদিকে না যাই,পরিচয় হলো চমক হাসান স্যারের “গণিতের রঙ্গে হাসিখুশি গণিত ” বইটির সাথে। এই বইটি যতটা জ্ঞানের তার থেকে বেশি আনন্দের, চিন্তার আনন্দের লেখক মনে করেন, গণিত পৃথিবীর সবচেয়ে মজার বিষয়। অনেক মানুষ এটাকে ভয় পায় কারণ মজার অংশগুলো তাদের জানানো হয় না।

এই গণিতে যারা অবদান রেখে গণিতবিদ হিসেবে মর্যাদাবান, কেমন ছিল তাদের জীবন? আসলে কে আবিষ্কার করেছিল পিথাগোরাসদের উপপাদ্য? কিভাবে মাথায় এলো আইডিয়াটা? তিন মেয়ের সমস্যা কি ছিল? মাথায় চুলের সংখ্যা কত? অনন্ত জলিল গণিত নিয়ে যদি সিনেমা বানালে কী সংলাপ বলতেন? এমন মজার সব চিন্তা, সমস্যা আরও গল্প নিয়েই “গণিতের রঙে হাসিখুশি গণিত ” বইটি।

‘চমক হাসান’ সম্পর্কে আপনারা অনেকেই অবগত। তিনি আমাদের মাঝে “মজার শিক্ষক” নামে পরিচিত। গণিত ও বিজ্ঞান এর মত দুর্বোধ বিষয় অতি সহজে এবং রসাত্মক ভঙ্গিতে ফুটিয়ে তোলেন তিনি। ২০১৩ সাল থেকে তিনি Youtube এ তাঁর “গণিতের রঙ্গে” পর্বগুলো ভিডিও আকারে প্রকাশ করতে থাকেন। তারই লেখ্যরূপ হচ্ছে এই বইটি। Youtube এ প্রকাশ করা ভিডিওগুলোর অনুলিখন করে বইটা প্রকাশ করে আদর্শ প্রকাশনী, ২০১৫ সালে। যারা Youtube এ প্রকাশ করা ভিডিও পর্বগুলো এখনো দেখননি তাদের অনুরোধ করবো ভিডিও লেকচার গুলো দেখতে এবং পাশাপাশি এই বইটা পড়তে।

এ বইটিতে লেখক খুবই চমৎকার উপস্থাপনা, অনেক সহজ ভাবে ও মজা ও আনন্দের সাথে গণিতের বিভিন্ন জটিল বিষয় নিয়ে রসাত্মক আলোচনা করেছেন। তাহলে,

বইটার রিভিউ শুরু করা যাক …

“প্রথম পর্বঃ আল মুকাবালা” দিয়ে শুরু করেছেন। বীজগণিতের শুরু এবং পিথাগোরাসের সংখ্যা ভিত্তিক চিন্তাভাবনা দিয়ে ! এ অংশে প্রকৃত উৎপাদক, বন্ধু সংখ্যা নিয়ে চমৎকার বর্ণনা দিয়েছেন। “কী নিষ্ঠুর” পর্বে সংখ্যা নিয়ে যে অনেক মজা করা যায় তা বুঝিয়েছেন (বাংলা ভাষায় নামকরণ করার ব্যাপারটা বেশ মজার লেগেছে) ! এর পর গুণ ও ভাগ করার একটা শর্টকাট সিস্টেম দেখিয়েছেন যেটা আগেকার মানুষজন ব্যাবহার করতেন !

“হায়রে শূন্য” পর্বটা অসাধারণ লেগেছে ! এখানে আমাদের ভারতীয় উপমহাদেশের শূন্য আবিষ্কার এছাড়া শূন্য নিয়ে গুণ ও ভাগ সংখ্যারেখার সাহায্যে সুন্দরভাবে বেশ খানিকটা কৌতুকের আশ্রয় নিয়ে আলোচনা করেছেন। “৩ টি মেয়ে!” পর্বে কার্ল ফ্রেডরিখ গাউসের ছেলেবেলার প্রতিভা দিয়ে শুরু করেছেন। ধারার যোগফল কিভাবে কাজ করে। কিভাবে মাইনাস মাইনাসে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে প্লাস হয় ! ছোটবেলার বর্গের সুত্র (a+b)² এর ব্যাখ্যা দিয়েছেন । গুণ কিভাবে কাজ করে এবং সূচকের সাহায্য 2⁰ = 1 কেন হয় তার যুক্তিযুত ব্যাখ্যা দিয়েছেন।

পর্ব ৫ “মাথায় চুল কয়টি” এখানে, ১০ এর ঘাত ও ১ গুগোল সংখ্যা নিয়ে বলেছেন। ৯ এর নামতা হাতে কিভাবে গোনা যায় এটাও ভালো লেগেছে ! এরপর Physics নিয়ে আলোচনা করেছেন। যেমনঃ ১ নিউটন ও ১ প্যাসকেল কেমন তা অনুভব / ফিল কিভাবে করা যায় ! এছাড়া, আজ থেকে ২২০০ বছর আগে “ইরাটোস্থেনিস” পৃথিবীর পরিধি কিভাবে মেপেছিলেন এই বিষয়টা ব্যাপক মজার লেগেছে।
“মিস্টার বাটা” পর্বে আইকিউ এবং রোমান সংখ্যাকে কেটেকুটে কিভাবে ভাগ করে অন্য মান পাওয়া যায় তা দেখিয়েছেন। শেষে দুইটা প্রশ্ন জুড়ে দিয়েছেন।

পর্ব ৭ “প্রিয় পাই ” এখানে পাই এর মান বলার রেকর্ড, পাই এর মান নির্নয়ের পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত রয়েছে। বিশেষ করে আমাদের দেশের ‘সৌমিত্র চক্রবর্তী’র পদ্ধতিটা বেশ মজার লেগেছে। শেষে পাই দিবস সম্পর্কে বলেছেন।
পর্ব ৮ এ অসীম (Infinite) নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন ।
পর্ব ৯ “ডিজে পিথাগোরাস” তিন কথায় অভিনব, পুরোই কমেডি এবং জটিলস। পিথাগোরাস কে ডিজে বানিয়ে ছেড়েছেন। এছাড়া ত্রিভুজ সংখ্যা, বর্গ সংখ্যা, নমন সংখ্যা এবং শেষে পিথাগোরাস এর বিখ্যাত উপপাদ্য সম্পর্কে বলেছেন।
পর্ব “সাড়ে নয়” এ ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেল এর সৈনিকদের মৃত্যুহার কমিয়ে আনা এছাড়া গণিত নিয়ে কিভাবে কোন কিছু চিন্তাভাবানা করা যায় তার আইডিয়া দিয়েছেন। বিশেষ করে, পিপড়া কিভাবে পেপসি খাবে এই বিষয়টা ভালো লেগেছে।

শেষের পর্ব ১০ “নিঃস্বার্থ গণিত – What is Math” এই পর্বটা অসাধারণ। একেবারে ট্যাবলেট দিয়ে ছেড়েছেন ! একক থেকে শুরু করে বর্গ, চতুর্ভুজ ও সামান্তরিক এরপর ত্রিভুজের ক্ষেত্রফল, বৃত্তের পরিধি, বৃত্তের ক্ষেত্রফল এবং সমবৃত্তভুমিক কোণকের বক্রতলের ক্ষেত্রফল সম্পর্কে ক্লিয়ার কাট এবং এসব বিষয় ফিল করার মজাটা বুঝিয়েছেন। শেষে রেখেছেন একটা চমক … প্রশ্ন দিতে ভোলেন নি লেখক।

বইয়ের নামঃ গণিতের রঙ্গে হাসিখুশি গণিত
বইয়ের লেখকঃ চমক হাসান
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৯৪ টি।
বইয়ের ধরনঃ গানিতিক বিষয়ক বই
পিডিএফ সাইজঃ ৬ মেগাবাইট প্রায়।
ডাউনলোডঃ গণিতের রঙ্গে হাসিখুশি গণিত pdf

The post গণিতের রঙ্গে হাসিখুশি গণিত pdf download | by চমক হাসান appeared first on Trickbd.com.

Source: