HomeAll Postফ্রিল্যান্সারে পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই এবং স্বাধীন মাস্টার কার্ড [পর্ব ৪র্থ]
Advertice Space with sell

Contact With facebook

ফ্রিল্যান্সারে পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই এবং স্বাধীন মাস্টার কার্ড [পর্ব ৪র্থ]

প্রশ্নোত্তর পর্বের ৪র্থ পোস্ট এটা। এই পোস্টের মূল আলোচ্য বিষয় থাকবে ফ্রিল্যান্সারে কার্ড এড করা নিয়ে। চলুন শুরু করা যাক । গত পর্ব যারা মিস করেছেন তাঁরা চাইলে পড়ে নিতে পারেন এখানে ক্লিক করে । 
প্রশ্নঃ আমি পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই করতে চাই কিভাবে করবো?
উত্তরঃ তার আগে আমাকে বলুন, আপনি পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই করে কি করবেন? যারা ফ্রিল্যান্সারে ক্লায়েন্ট হিসেবে কাজ করিয়ে নেয় বিশেষ করে তাদের প্রয়োজন হয় পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই এর। কারণ, পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই না করলে প্রোজেক্ট ছাড়তে, মাইলস্টোন দিলেও আওয়ারলি প্রোজেক্টে এওয়ার্ড করতে মাইলস্টোন করতে দেয় না। কিন্তু আপনি ফ্রিল্যান্সার হয়ে কেন পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই করবেন?
আগে যেমন কার্ডের মাধ্যমে টাকা উইথড্র করা যেত, এখন তো সেটাও করা যায় না। যদি বিড কিনতে চান তাহলে ডিপোজিট করতে পারেন। আপনি চাইলে স্ক্রিলের মাধ্যমে ডলার ডিপোজিট করে বিড ক্রয় করতে পারেন। এরজন্য আপনাকে পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই করার দরকার নেই। আশা করি ব্যাপারটা ক্লিয়ার হয়ে গেছে??
প্রশ্নঃ কোন কার্ড দিয়ে পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই করা ভালো হবে?
উত্তরঃ আমার ব্যক্তিগত উত্তর এটা। আমি ইউজ করি স্বাধীন মাস্টার কার্ড। এটা দিয়েই আমার পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই করেছি।
প্রশ্নঃ এই কার্ডের কি কি সুবিধা আছে?
উত্তরঃ “স্বাধীন” কার্ডের সুবিধা :
  • ব্যাংক এশিয়া “স্বাধীন” মাস্টারকার্ড একটি ডুয়েল কারেন্সি কার্ড। আপনি বাংলাদেশি “টাকা” এবং ইন্টারন্যাশনাল “USD” কারেন্সী তে লেনদেন করতে পারবেন।
  • ব্যক্তি এবং কোম্পানি উভয় নামে এই কার্ড ব্যবহার করা যাবে।
  • অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রার ৭০% পর্যন্ত “স্বাধীন” কার্ডে রেখে দেয়ার সুবিধা যার মাধ্যমে অনলাইন বা ই-কমার্স লেনদেন করার সুযোগ থাকছে।
  • কার্ড হোল্ডারদের জন্য বীমা সুবিধা থাকছে।
  • শতভাগ দেশিয় মুদ্রায় রূপান্তরের সুযোগ যার মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে ফ্রিল্যান্সারদের অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রার পূর্ণ ব্যবহার ও বিনিয়োগ নিশ্চিত হবে।
  • দেশে এবং দেশের বাইরে ATM এবং POS মেশিনের মাধ্যমে টাকা উত্তোলন এবং পেমেন্ট সুবিধা
  • ই-কর্মার্স এবং অনলাইনে সব ধরনের কেনাকাটা (বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক)
  • কার্ডে মাইক্রোচিপ সংযুক্ত থাকবে যা, ডাটা সিকিউরিটি এনশিওর করবে
  • টাকা জমা, পেমেন্ট আসা এবং টাকা উত্তোলন সহ প্রতিবার ট্রানজেকশনে ফ্রি SMS এলার্ট
  • ২৪ ঘন্টা কল সেন্টার সার্ভিস
প্রশ্নঃ কার্ড নিতে হলে কি কি করতে হবে?
উত্তরঃ  স্বাধীন কার্ড নেওার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র:
  • পূরণকৃত কার্ড আবেদন পত্র
  • জাতীয় পরিচয়পত্র / পাসপোর্ট / ড্রাইভিং লাইসেন্স
  • TIN সার্টিফিকেট/ ট্যাক্স রিটার্ন কপি
  • দুই কপি রঙিন ছবি
  • কাজের আদেশ/ মার্কেট প্লেস ID নম্বর/ পেমেন্ট রিসিভ কপি/ ফ্রীলান্সিং নিশ্চিত করা কাগজ পত্র
প্রশ্নঃ স্বাধীন মাস্টার কার্ড অর্ডার করবো কিভাবে?
উত্তরঃ  এখান থেকে ফর্ম ডাউনলোড করে সেটা ফিলাপ করুণ। আপনার ফ্রিল্যান্সার আইডির প্রোফাইল পেজ থেকে একটা স্ক্রিনশট নিয়ে প্রিন্ট করুণ। ২কপি ছবি সাথে রাখবেন কাজে লাগবে। এরপর ব্যাংক এশিয়ার ব্রাঞ্চে কাগজ গুলো জমা দেবেন। ইনশাহ আল্লাহ ৭-১০ দিনের মধ্যে কার্ড আপনার বাসায় পৌঁছে যাবে।
প্রশ্নঃ এই কার্ড এক্টিভ করবো কিভাবে? আর বাৎসরিক চার্জ কেমন?
উত্তরঃ কার্ড পাওয়ার পরে কার্ডের সাথে একটা ডকুমেন্টস পাবেন সেটাতে আপনার নাম এবং আপনার সিগনেচার করুণ। এরপর ব্যাংক এশিয়ার ব্রাঞ্চে যাবেন সাথে ৬০০ টাকা নিয়ে যাবেন। কারণ কার্ড এক্টিভ করতে ৫৭৫ টাকা লাগবে। সুতরাং এই চার্জটা লাগবে। এটা বাৎসরিক চার্জ। প্রতি বছর এটা পে করতে হবে।
এই ছিলো আজকের প্রশ্নোত্তর পর্বে। দেখা হবে আগামী পর্বে। ভাল থাকুন, সুস্থ্য থাকুন, নিরাপদ থাকার চেষ্টা করুণ।
উত্তর দিয়েছেনঃ এম এইচ মামুন

The post ফ্রিল্যান্সারে পেমেন্ট ম্যাথড ভেরিফাই এবং স্বাধীন মাস্টার কার্ড [পর্ব ৪র্থ] appeared first on Trickbd.com.

Source:

About Author (1908)

This author may not interusted to share anything with others

Leave a Reply

Related Posts

Switch To Desktop Version