ফ্রিল্যান্সিং কি? ক্যারিয়ার হিসাবে ফ্রিল্যান্সিং এবং মোবাইলে ফ্রিল্যান্সিং

Posted on

বর্তমানে আমরা প্রায় সব সময়  ফ্রিল্যান্সিং শব্দটি শুনে থাকি এবং ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে  আমাদের মনে অনেক সময় অনেক প্রশ্ন থাকে।  আজকে আমি এ আর্টিকেল এর মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং কাকে বলে, কিভাবে করা যায়, মোবাইল দিয়ে কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং করব?  ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার বা ভবিষ্যৎ কী? এ সম্পর্কে আপনাদের ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করব।

ফ্রিল্যান্সিং কাকে বলে ?

ফ্রিল্যান্সিং একটি ইংরেজী শব্দ আর এর বাংলা অর্থ হলো মুক্তপেশা। কার অধীনে না কাজ করে মুক্তভাবে কাজ করাকে সাধারণত ফ্রিল্যান্সিং বলা হয়। আর যারা কাজ করে তাদেরকে বলা হয় ফ্রিল্যান্সার

কিন্তু বর্তমানে আমরা অনলাইনে মুক্তমনে এবং মুক্তভাবে কাজ করাকেই ফ্রিল্যান্সিং বলে থাকি। এবং ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস বলতে আমরা ফাইবার আপওয়ার্ক পিপল পার আওয়ার ফ্রিল্যান্সার ইত্যাদি মার্কেটপ্লেস কে বুজে থাকে।

সাধারণ কাজে আমরা যখন আমরা কোনো জব বা  চাকরির জন্য কোন জায়গায় আবেদন করি তখন তারা আমাদের ইন্টারভিউ এর জন্য যেতে বলে, আমাদের ইন্টারভিউ সম্পূর্ণ হলে তারা আমাদের একটি নির্দিষ্ট বেতন দেয় এবং এর বেতন  পাওয়ার জন্য আমাদের প্রতিদিন অফিসে যেতে হয়।  একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত কাজ করতে হয়।  তারপর আমরা বেতন পাই।

অপরদিকে ফ্রিল্যান্সিং এ ও আমাদের ক্লায়েন্টের সাথে সাথে প্রথমে কথাবার্তা হয় কিন্তু সেটা কোন অফিসে গিয়ে নয়। আমরা আমাদের ঘরে বসে কম্পিউটার, মোবাইল বা ল্যাপটপ দিয়ে সম্পূর্ণ করি। তারপর ক্লায়েন্ট আমাদের কাজ দেয়।  সেটার জন্য একটা সময় ও স্যালারি ও থাকে।  কিন্তু সময়টা আমরা আমাদের মত করে ব্যবহার করতে পারি। 

ইচ্ছে হলে পুরো সময় ধরে কিছুক্ষণ পরপর কাজ করতে পারি অথবা একটা নির্দিষ্ট সময় বুঝে কাজটা শেষ করে বাকি সময় ফ্রি থাকতে পারি।  কাজটা সম্পন্ন করার জন্য ও কোন অফিসে যেতে হয় না।  আমরা ঘরে বসে কাজটা করতে পারি। তাই ফ্রিল্যান্সিংকে মুক্ত পেশা বলা হয়।

ক্যারিয়ার হিসেবে ফ্রিল্যান্সিং পেশা

পৃথিবী প্রতিনিয়ত ডেভলপ হচ্ছে এবং সবাই এখন ঘরে বসে কাজ করাকে গুরুত্ব দিচ্ছে। বড় বড় কোম্পানিরা নিজেরা করি বেশি টাকা খরচ করে কর্মী না hire করে ফ্রিল্যান্সার কর্মীর ব্যবহার করে অল্প টাকার মাধ্যমে বড় বড় কাজ সম্পন্ন করেছে করতেছি। সুতরাং এর ভবিষ্যত এবং চাহিদা প্রতিনিয়ত বাড়তেছে।

বর্তমানে এমনকি ভবিষ্যতেও ফ্রিল্যান্সিং খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠবে। বর্তমানে আমাদের বাংলাদেশ ফ্রিল্যান্সারের সংখ্যা প্রায় ছয় লক্ষ। এবং অনেক সফল ফ্রিল্যান্সার রয়েছে যারা মাসে প্রায় লক্ষাধিক টাকা ইনকাম করে। 

এখন অনেকের মনে প্রশ্ন আসতে পারে, ফ্রিল্যান্সিং করে লাখ লাখ টাকা এটা কি সম্ভব ?

উত্তর হল হ্যাঁ সম্ভব।  আপনি যদি ইউটিউবে সার্চ করেন ফ্রিল্যান্সিং ইনকাম ইন বাংলাদেশ তাহলে আপনি অনেক ভিডিও পাবেন যেখানে অনেক ফ্রিল্যান্সার তাদের ইনকাম এর ভিডিও শেয়ার করেছেন। এছাড়াও আপনি ইউটিউবে গিয়ে সার্চ দিতে পারেন “Freelancing Income Proof

তবে ইনকাম কিন্তু অল্প দিনের সম্ভব নয়, এর জন্য আপনাকে আগে কাজ শিখতে হবে এবং ভালভাবে কাজ শিখার পরে মার্কেটপ্লেসে নেমে তারপরে আপনি কাজ করতে পারবেন।

ক্যারিয়ার হিসেবে ফ্রিল্যান্সিং পেশা এ সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে চান তাহলে আপনি এই আর্টিকেলটি পড়তে পারেন: ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার এর ভবিষ্যৎ , ফ্রিল্যান্সিং ভবিষ্যৎ

মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং:

ফ্রিল্যান্সিং কি? কিভাবে? আশাকরি ওপরের আর্টিকেলটুকু পড়ে আপনি বুঝে গেছেন। এখন অনেকে প্রশ্ন করতে পারেন মোবাইলে ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে সম্ভব ?

ফ্রিল্যান্সিং পেশা এমন অনেক কাজ আছে, যেগুলো কাজ করতে কম্পিউটারের প্রয়োজন হয়না। আপনার একটি এন্ড্রয়েড মোবাইল দিয়েই করতে পারবেন। আপনার যদি প্রশ্ন থাকলে কিভাবে সম্ভব তাহলে আপনি নিচের আর্টিকেলটি পড়তে পারেন: মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং – মোবাইল দিয়ে কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং করা যায় ?

 আর্টিকেলটি পড়ে আপনারা যদি উপকৃত হয়ে থাকেন, তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানান। ফ্রিল্যান্সিং এবং অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে জানতে চাইলে, আমার ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন। সম্পূর্ণ আর্টিকেল পড়ার জন্য সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ।  

The post ফ্রিল্যান্সিং কি? ক্যারিয়ার হিসাবে ফ্রিল্যান্সিং এবং মোবাইলে ফ্রিল্যান্সিং appeared first on Trickbd.com.

Source:

Leave a Reply

Your email address will not be published.