যাদের পড়াশোনার মন বসে না। পড়াশোনা মনে রাখতে পারবেন না তারা এই দোয়াটি পড়তে পারেন

Posted on

আসসালামু আলাইকুম সবাই কেমন আছেন…..? আশা করি সবাই ভালো আছেন । আমি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছি ।আসলে কেউ ভালো না থাকলে TrickBD তে ভিজিট করেনা ।তাই আপনাকে TrickBD তে আসার জন্য ধন্যবাদ ।ভালো কিছু জানতে সবাই TrickBD এর সাথেই থাকুন ।

যাদের পড়াশোনার মন বসে না।

শিক্ষার্থীবৃন্দ তুমি আজ এই আর্টিকেলটি পড়ছো মানে তুমি নিজেকে আরও উন্নত করতে চাও। তুমি ইতিমধ্যেই অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে কারণ এই পৃথিবীতে এখন এরকম অনেক মানুষ আছে যাদের কোন লক্ষ্য নেই। যাদের কোনো স্বপ্ন নেই। ভয় পেয়ে যারা জীবন কাটায় তারা কোনদিনও জীবনকে সমনে নিয়ে যেতে পারে না। ভেবে দেখো আমাদের নবী সাল্লাহু সাল্লাম দীর্ঘ 23 বছর ধরে জীবনের প্রথম 13 বছর 200 মানুষকে ইসলামে দীক্ষিত করতে পারেনি।

কিন্তু তারপর গোটা আরব অঞ্চল থেকে শুরু করে পুরো পৃথিবীতে প্রায় 200 কোটি মুসলমান। তিনি যদি সেই 200 তে গিয়ে থেমে যেত তাহলে আজ আমরা শান্তির ধর্ম-ইসলামকে পেতাম না। যার ফলে আমাদের নিশ্চিত জাহান্নামী হয়ে এই পৃথিবী থেকে বিদায় নিতে হতো। ভালো করে বুঝে না যারা ভয় পায় তারা কোনদিনও নিজের জীবনকে জিততে পারে না। বিজয়ী হবে তারাই যারা বিশ্বাস করে যে তারা তাদের স্বপ্নগুলোকে জিতিয়ে নিতে পারে।

তোমার আশেপাশের মানুষ গুলোর মতো তুমিও সাধারণ চিন্তাভাবনা করে থাকলেই খুব সাধারণ কাজ করতে থাকলে তুমি কিভাবে তোমার স্বপ্ন গুলো কে জিতে নেবে…? তোমার বন্ধুরা যেভাবে পড়াশোনা করছে, তারা যত সময় পড়াশোনা করছে তুমিও যদি পড়াশোনা করো তাহলে তুমি তাদের থেকে ভালো রেজাল্ট করবে কীভাবে…? সবাই যে কাজগুলো করছো এই কাজগুলো তুমিও যদি করতে থাকো তাহলে তার ফলাফল হয়েছে তুমিও একই ফলাফল হবে।

আমাকে আজকে এই সিলেবাসটা শেষ করতে হবে এরকম কিছু সিদ্ধান্ত নিলেও প্রথম দিনেই তুমি সেটা শেষ করতে পারবে না। অবশ্যই তোমার মধ্যেই অলসতা আসবে। বই হাতে নিয়ে পড়ার সময়ে তিনি মেন্টালিটি ডিপ্রেস হবে। তুমি ভালো করে পড়াশোনা কনসেনট্রেট করতে পারবে না। কিন্তু তুমি যদি তোমার মানসিক ধৈর্যকে জিতে নিয়ে বারবার চেষ্টা করতে থাকো, কষ্ট করে স্কুলে পড়াশোনার উপরেই নির্ভর করে থাকো এবং যদি বিশ্বাস করতে পারো এই পড়াশোনায় তোমার গোটা ভবিষ্যৎ।

নিজেকে নিজেই বুঝাও আবারও চেষ্টা শুরু করবো। বইখাতা নিয়ে মন থেকে পড়াশোনা করলে তবে তোমাকে দিয়ে তোমার স্বপ্নগুলো জেতা সম্ভব। বই হাতে নিয়ে পড়ার আগে তোমার ভিতরের মানুষটির সাথে তোমাকে জিততে হবে। আমি এখন এত সময় একটানা পড়বো এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে তোমাকে তোমার চিন্তাগুলোকে জিতে নিতে হবে। আমি ক্লান্ত হয়ে গিয়েছি কিন্তু তবুও এ বিষয়টি আমার মাথায় ঢুকছেনা এরকম কিছু বলে হাল ছেড়ে দিলে হবে না।

আমি বেশি কিছু করতে পারবোনা। আমি একটা এভারেজ স্টুডেন্ট। এরকম ভাবনা চিন্তা করে নিজেই নিজের আমিটাকে ছোট করে দিওনা। তোমার ভেতরের অসীম শক্তির দরজাটিকে নিজেই বন্ধ করে রেখো না। এরকম অনেকে এভারেজ স্টুডেন্ট আছে যারা আজ বড় বড় সেক্টরে বিশাল কিছু করছে। কিন্তু একসময় তারাও এভারেজ স্টুডেন্ট ছিল। কিন্তু একদিন তারা তাদের জীবনের একটি সিদ্ধান্ত নেয়, আমি একটি সাধারণ এভারেজ জীবন কাটাব না। একটা এভারেজ স্টুডেন্ট সব সাবজেক্টে ভালো রেজাল্ট করতে পারে না এটা কিন্তু ঠিকই।

কিন্তু সে সারাজীবন এভারেজ স্টুডেন্ট হয়ে থাকবে এর কোন অর্থ নেই। পরাজায়কে দেখে ভয় পেয়ো না। নতুন কোন জিনিস শিখতে গিয়ে ভয় পেয়োনা। বিজয়ীকে দেখো তুমি জিতবেই। এরকম আশা করো আজ তোমার জেতার প্রয়োজনটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তোমার লক্ষ তোমার স্বপ্ন সেগুলো তোমার কাছেই খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমি কি ধরে নিব যে এইগুলো সত্যি তোমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ…?

বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিয়ে ঘোরার থেকে তোমার স্বপ্ন গুলো কি তোমার কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ নাকি ফোনের সামনে টিভির সামনে বসে সময় নষ্ট করা তোমার জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ…? তাই সময় নষ্ট না করে নিজের লক্ষ্যের পেছনে সময় দেওয়ারটা তোমার কাছে অবশ্যই প্রথম প্রায়োরিটি হওয়া উচিত। আমাকে এক্সাম ক্লিয়ার করতে হবে, ভালো পড়াশোনা করে আমাকে ভালো একটা চাকরি পেতে হবে।

আমাকে বিজনেস স্টার্ট করতে হবে। আমাকে নতুন কিছু আবিষ্কার করতে হবে। মানব কল্যাণে নিজেকে সামিল করতে হবে। এসব গুলো বলতে আর ভাবতে থাকলে তুমি হয়তো সেগুলো করে ফেলবে না। কিন্তু এগুলো প্রভাব তোমার অবচেতন মনে ঠিকই রয়ে যাবে। যা তোমাকে এগিয়ে যেতে সাহায্য করবে। তোমার বন্ধুদের সাথে ঘোরার থেকেই ঘন্টার পর ঘন্টা আড্ডা দেওয়া থেকে, ঘন্টার পর ঘন্টা ঘুমানো থেকে গেমস খেলা থেকে টিভি আর মোবাইল এর সময় নষ্ট করা থেকে তোমাকে জীবনে কিছু করতে হবে এটি তোমার লক্ষ্য হওয়া উচিত। এই পরীক্ষায় আমাকে উত্তীর্ণ হতে হবে এটি যেদিন বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে সেদিন থেকে তুমি বিজয়ী হতে থাকবে।

কিছু কিছু সময়ে তোমাকে তোমার ঘুম ত্যাগ করতে হবে, কারণ তোমার জীবনে কিছু অর্জন করাটা তোমার কাছে তার থেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। পৃথিবীতে প্রায় ৮০০ কোটি মানুষের বসবাস। কিন্তু তার মধ্যে মাত্র কিছু মানুষ প্রত্যেকদিন নিজের জীবনটাকে সফল করার তাগিদে সমাজের সাথে ভাগ্যের সাথে নিজের সাথে নিজে প্রতিটা ঘন্টা লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। আর আমি জানি ও বিশ্বাস করি তাদের এই লড়াই কখনো বৃথা যাবে না।

আজকে হয়তো তুমি ভাবছো এই Exam টা যাক। পরের টাতে পড়াশোনা করে পাঠিয়ে দেবো। কিন্তু এই এক্সামটা ইতিমধ্যে খারাপ হয়ে যাওয়াতে তুমি হয়তো ভেঙে পড়তো মনে রাখবে এটা একটা এক্সাম। একটা এক্সাম একটা পেপার কখনো তোমার জীবন বদলাতে পারবে না। তোমাকে তোমার জীবন বদলাতে হবে। আর সে তুমি আজ থেকেই চেষ্টা চালিয়ে যাবে। নিজেই নিজের উপর সন্দেহ করো না। তুমি অবশ্যই করতে পারবে এই বিশ্বাসটাকে ধরে রাখে তোমার গোটা ভবিষ্যৎ আজ এই কাজটির উপরে নির্ভর করছে।

এটা যদি তুমি অনুভব করতে পারো তাহলে যতই কঠিন কিছু হোক না কেন তুমি অবশ্যই পারবে। একটা প্রশ্ন তুমি নিজেকে নিজে করো। আমি এখন যেভাবে চলছি এভাবে চললে আমি কি আমার লক্ষ্য পূরণ করতে পারব…? না পারব না। যদি এরকম হয় তাহলে শুরু করে দাও নিজেকে বদলানোর। বদলে ফেলো নিজের সমস্ত চিন্তাভাবনা। দেখবে একদিন বদলে যাবে তোমার গোটা জীবনটা ইনশাআল্লাহ। তোমার মত আমাদের আর্টিকেলটি যারা মনযোগ দিয়ে পড়ে তারাই শতভাগ উপকৃত হয়।

যারা এই পর্যন্ত আর্টিকেলটি পড়েছেন তাদের জন্যে আজকে একটি বিশেষ আমল কথা বলছি। আমরা সকলেই জানি আল্লাহর সাহায্য ছাড়া কোন কাজে সফলতা অর্জন করা সম্ভব নয়। এজন্য আমাদের উচিত সর্বদা আল্লাহর কাছে দু’আ করা যতে তিনি আমাদের স্মৃতি শক্তি বাড়িয়ে দেন এবং আমাদেরকে কল্যাণকর জ্ঞান দান করেন। এক্ষেত্রে আমরা আজকে তিন শব্দের এই দোয়াটি পাঠ করতে পারি আমলটি যেভাবে করবেন। প্রথমে পড়তে বসার পুর্বে অজু করে নেবেন তারপর তিনবার যেকোনো দূরুদ শরীফ পড়ে নিবেন। হতে পারে সেটা দুরুদে ইব্রাহিম বা অন্য কোন দরুদ তারপর তিনবার স্মরণশক্তি এই দোয়াটি পড়তে হবে

তারপর আবার তিনবার দূরুদ শরীফ পড়ে নিবেন। অতঃপর দুহাত একত্র করে তাতে ফুঁক দিয়ে মাথায় মাচেহ করে দিবেন এবং বুকেও তিনবার ফুঁক দিবেন ইনশাআল্লাহ এই আমলটি ওসিলায় আপনার পড়া ভালোভাবে মুখস্ত হবে এবং মনেও থাকবে।

আপনার ওয়েবসাইটের জন্য আর্টিকেল প্রয়োজন হলে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন ফেসবুকে আমি


The post যাদের পড়াশোনার মন বসে না। পড়াশোনা মনে রাখতে পারবেন না তারা এই দোয়াটি পড়তে পারেন appeared first on Trickbd.com.

Source:

Leave a Reply

Your email address will not be published.