যে চার ব্যাক্তিকে আল্লাহ তায়ালা নিজেই অভিশপ্ত করেন। দেখে নিন আপনিও চার ব্যক্তির মধ্যে আছেন কিনা

Posted on

আসসালামু আলাইকুম সবাই কেমন আছেন…..? আশা করি সবাই ভালো আছেন । আমি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছি ।আসলে কেউ ভালো না থাকলে TrickBD তে ভিজিট করেনা ।তাই আপনাকে TrickBD তে আসার জন্য ধন্যবাদ ।ভালো কিছু জানতে সবাই TrickBD এর সাথেই থাকুন ।

যে চার ব্যাক্তিকে আল্লাহ তায়ালা নিজেই অভিশপ্ত করেন


ভালো মন্দ দুটোই আল্লাহ তাআলা সৃষ্টি করেছেন। তবে ভাল কাজ করতেই তিনি তাঁর বান্দাদের আদেশ দিয়েছেন। মন্দ কাজ থেকে বিরত থাকতে বলেছেন। কিছু মন্দ কাজ খুবই নিকৃষ্টমানের। এসব কাজ যারা করে আল্লাহ তাদের প্রতি লানত করেছেন। তাদের ধ্বংস কামনা করেছেন। পবিত্র কোরআনের বিভিন্ন স্থানে আল্লাহ তায়ালা সেসব মানুষের বিবরণ দিয়েছেন।তো আজকে আমরা আলোচনা করবোঃ যে চার ব্যক্তির উপর আল্লাহ নিজেই অভিযোগ করেন।

১. স্বতী সাধ্বী নারীদের অপবাদ দেওয়া: নারীর অধিকার রক্ষায় ইসলাম কঠোর আইন প্রণয়ন করেছে। তাদের সম্মান নিয়ে ছিনিমিনি খেলাকে ইসলামে অপরাধী সাব্যস্ত করা হয়েছে। যথাযথ প্রমাণ ছাড়া কোনো নারীর প্রতি কেউ অভিযোগের আঙুল তুললে তার জন্য শাস্তির বিধান রাখা হয়েছে। অপবাদ দাদা ব্যক্তিকে আল্লাহ অভিশপ্ত ঘোষণা করেছেন। আল্লাহ তা’আলা বলেনঃ স্বতী-সাধ্বী, সরলমনা ও ঈমানদার নারীদের প্রতি যারা অপবাদ দেয় তারা দুনিয়া ও আখিরাতে অভিশপ্ত। তাদের জন্যে রয়েছে মহাশাস্তি। (সূরা নূর আয়াত ২৩)

২. আত্মীয়তার সম্পর্ক ছিন্ন করা: মানুষকে আল্লাহ তায়ালা সামাজিক জীব হিসেবে সৃষ্টি করেছেন। সমাজের ভারসাম্য রক্ষায় এ বন্ধন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আত্মীয় স্বজনের প্রতি সুসম্পর্ক বজায় রাখার তাগিদ ইসলামী অপরিসীম। তাই এ সম্পর্ক ছিন্ন করা অভিশপ্ত হওয়ার অন্যতম কারণ। আল্লাহ তায়ালা বলেন →আল্লাহর সঙ্গে দৃঢ় অঙ্গীকার করার পর যারা তা ভাঙ্গে সে সম্পর্ক আল্লাহ তায়ালা অক্ষুণ্ণ রাখতে আদেশ দিয়েছেন আর যারা তা ছিন্ন করে এবং পৃথিবীতে অশান্তি সৃষ্টি করে তাদের জন্যে রয়েছে অভিশাপ এবং তাদের জন্য রয়েছে মন্দ নিবাস।( সূরা রাদ আয়াত ২৫)

৩. মিথ্যাবাদিতা: মিথ্যা কথা বলা খুবই জঘন্য কাজ। মিথ্যুকদের প্রতি আল্লাহর অভিশাপ অনিবার্য। আল্লাহ তাআলা বলেনঃ তোমার কাছে জ্ঞান আসার পর যে ব্যক্তি এ বিষয়ে তোমার সঙ্গে তর্ক করে তাকে বলো এসো আমরা আহ্বান করি আমাদের পুত্রদের এবং তোমাদের পুত্রদের, আমাদের নারীদের এবং তোমাদের নারীদের, আমাদের নিজেদের এবং তোমাদের নিজেদের। তারপর আমরা বিনীত আবেদন করি এবং মিথ্যুকদের দেই আল্লাহর অভিশাপ। (সূরা আল ইমরান আয়াত ৬১)

৩. (ক) কুফর: আল্লাহ ও তাঁর রাসূলকে অস্বীকার করার নাম কুফর। কাফিরদের জন্যে রয়েছে আল্লাহর অভিশাপ। মহান আল্লাহ তা’আলা বলেন →যারা কুফরী করে, এবং কাফেররূপে মারা যায় তাদের প্রতি আল্লাহ সব ফেরেশতা ও মানুষের অভিশাপ। (সূরা বাকারা আয়াত ১৬১)

৩.(খ) মুনাফিকি: দুমুখো কপট মানুষ খুবই ইতর প্রকৃতির লোক। তাই মুখে ঈমান রেখের অন্তরে কুফরি গোপন করা মুনাফিকদের প্রতি আল্লাহর অভিশাপ দিয়েছেন। আল্লাহ তাআলা বলেনঃ মুনাফিক নারী-পুরুষ ও কাফিরদের আল্লাহ জাহান্নামের আগুনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। সেখানে তারা স্হায়ী হবে। সেটাই তাদের জন্য যথেষ্ট। আল্লাহ তাদের অভিশাপ দিয়েছেন। তাদের জন্য রয়েছে স্থায়ী শাস্তি।( সূরা তওবা আয়াত ৬৮)

৩.(গ) বিশ্বাসঘাতকতা: বিশ্বাসঘাতকতা এক অমার্জনীয় অপরাধ। আল্লাহর কাছেও মানুষের কাছেও। তাই বিশ্বাস ভঙ্গকারি অভিশপ্ত। আল্লাহতা’লা বলেন→ অঙ্গীকার ভাঙ্গার জন্য আমি তাদের অভিশাপ দিয়েছি। তাদের হৃদয় কঠোর করেছি। তারা শব্দগুলোর আসল অর্থ বিকৃত করে। তাদের যা উপদেশ দেয়া হয়েছিল তার একাংশ তারা ভুলে গেছে। তাদের মধ্যে অল্পসংখ্যকই ছাড়া সবাইকে তুমি সর্বদা বিশ্বাসঘাতকতা করতে দেখবে। আমাদের ক্ষমা করো এবং উপেক্ষা করো আল্লাহ সৎ লোকদের ভালোবাসেন। (সূরা মায়িদা আয়াত ১৩)

৪. হত্যা ও খুনাখুনি: হত্যা ও খুনাখুনি আল্লাহ মোটেও পছন্দ করেন না।তাই তিনি হত্যাকারীকে অভিশপ্ত বলেছেন। আল্লাহ তাআলা বলেনঃ ইচ্ছে করে কেউ কোন মুমিনকে হত্যা করলে তার শাস্তি জাহান্নাম। সেখানে সে স্থায়ী হবে। আল্লাহ তার প্রতি রুষ্ট হবেন। তাকে অভিশাপ দেবেন। তার জন্য প্রস্তুত রাখবেন মহাশাস্তি। (সূরা নিসা আয়াত ৯৩)

এছাড়া আল্লাহ তায়ালা বলেন→ সাবধান! অত্যাচারীদের প্রতি আল্লাহর অভিশাপ। (সূরা হুদ আয়াত ১৮) অন্যত্র তিনি বলেন →অতঃপর জনৈক ঘোষণাকারী তাদের নিকট ঘোষণা করবে, অত্যাচারীদের উপর আল্লাহর অভিসম্পাত। ( সূরা আ’রাফ আয়াত ৪৪)

Trickbd তে অনেকেই পোস্ট কতে চান কিন্তু করতে পারছেন না। আপনারা Ictbn.Com ওয়েবসাইটে পোস্ট করতে পারেন।এখানে একাউন্ট করলেই author।এখানে প্রতি পোস্টের জন্য ৫-৫০ টাকা পর্যন্ত দেওয়া হয়।পোস্টের মানের উপর ভিত্তি করে। ICTBN.Com

আশা করি সবাই সবকিছু বুঝতে পেরেছেন। কোথাও সমস্যা হলে কমেন্ট করে জানাবেন অথবা ফেসবুকে জানাতে পারেন ফেসবুকে আমি


The post যে চার ব্যাক্তিকে আল্লাহ তায়ালা নিজেই অভিশপ্ত করেন। দেখে নিন আপনিও চার ব্যক্তির মধ্যে আছেন কিনা appeared first on Trickbd.com.

Source:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *