শুক্রবার জান্নাতে বাজার বসে!! প্রধান আকর্ষণ কি….? জানতে চাইলে আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়ুন।

Posted on

আসসালামু আলাইকুম সবাই কেমন আছেন…..? আশা করি সবাই ভালো আছেন । আমি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছি ।আসলে কেউ ভালো না থাকলে TrickBD তে ভিজিট করেনা ।তাই আপনাকে TrickBD তে আসার জন্য ধন্যবাদ ।ভালো কিছু জানতে সবাই TrickBD এর সাথেই থাকুন ।

শুক্রবার জান্নাতে বাজার বসে!! প্রধান আকর্ষণ কি….?

আমরা হয়তো অনেকেই জানিনা পৃথিবীতে যেমন হাট বাজার বসে, একইভাবে শুক্রবারে জান্নাতেও একটি বাজার বসে। জান্নাতের বাজার পৃথিবীর বাজারের মতো নয়। জান্নাতের বাজারের নিয়ম-নীতি পৃথিবীর বাজারগুলোর চেয়ে ভিন্ন। সেখানে কোনো ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড থাকবেনা। থাকবেনা কোন ক্রয়-বিক্রয়। হযরত আনাস ইবনে মালেক রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত একটি হাদীসে এসেছেঃ জানাতে একটি বাজার থাকবে।

প্রত্যেক জুম্মায় জান্নাতি লোকেরা তাতে একত্রিত হবে। সুবহানাল্লাহ। তারপর উত্তর দিকের মৃদু বায়ু প্রবাহিত হয়ে সেখানকার ধুলাবালি তাদের মুখমণ্ডল ও পোশাক-পরিচ্ছদে লাগিয়ে দেওয়া হবে। কি অবাক হচ্ছেন ধুলোবালি লাগবে এটা আবার কেমন কথা! না না পৃথিবীর বিষাক্ত ধুলাবালি নয়! এতে তাদের সৌন্দর্য এবং শরীরের রং আরও আকর্ষনীয় হয়ে উঠবে। যখন চোখের জান্নাতের ঐ সমস্ত ধুলাবালি গুলো লাগবে!

অতঃপর তারা নিজেদের পরিবারবর্গের কাছে ফিরে যাবে। এসো দেখবে পরিবারের লোকজনের শরীরের রং ও সৌন্দর্য আরো বহুগুণ বেড়ে গেছে। আল্লাহু আকবার। পরিবারের লোকেরা তখন তাদেরকে বলবে আল্লাহর শপথ! আমাদের কাছ থেকে যাবার পর তোমাদের সৌন্দর্য আরো বহুগুণ বেড়ে গেছে! উত্তরা তারা বলবেঃ আল্লাহর শপথ! তোমাদের শরীরের সৌন্দর্য তোমাদের নিকট থেকে আমি যাবার পর বহুগুণ বেড়ে গেছে!(মুসলিম হাদিস নাম্বার ২৮৩৩,১৮৮৯)

হযরত আলী রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাম বলেছেন →জান্নাতে একটি বাজার রয়েছে, সেখানে যখনই কোন ব্যক্তির যে ধরনের মুখায়ব ও প্রতিকৃতি ধারণ করতে চাইবে, সঙ্গে সঙ্গে সেই ব্যক্তি সে আকৃতির রূপ ধারণ করবে।(মিশকাত হাদিস নাম্বার ৫৬৪৬,১৯৮২;তিরমিজি হাদিস নাম্বার ২৫৫০) সুবাহান আল্লাহ।

হযরত সাঈদ ইবনে মুসায়্যাব রহমতুল্লাহি থেকে বর্ণিত তিনি একদিন আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু এর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু বলেন আল্লাহর কাছে দোয়া করি যেন তিনি আমাকে এবং তোমাকে জান্নাতের বাজারে একত্রিত করেন। হযরত সাঈদ ইবনে মুসায়্যাব তখন বললেন জানাতে কি কোন বাজার থাকবে। উত্তরে তিনি বললেন হে রাসূল করীম সাল্লাহু সাল্লাম আমাকে জানিয়েছেন যে জান্নাতের জান্নাতে প্রবেশ করার পর নিজ নিজ আমল অনুসারে যথাযোগ্য বাসস্থান গ্রহণ করবে।

পরে দুনিয়ার দিন হিসাব করে প্রতি জুমাবার তারা তাদের মালিকের সাথে সাক্ষাতে আসবে। তাদের জন্য তারা আরশ প্রকাশ করা হবে সুবহানাল্লাহ। আমরা এই হাদীস থেকে স্পষ্ট বুঝতে পেরেছি প্রতি শুক্রবার জান্নাতে যে বাজার বসবে সেখানে সকল জান্নাতিরা একত্রিত হয়ে আনন্দ সুখে থাকবেন সে বাজারে এই পুনর্মিলনীর অনুষ্ঠানে সর্বশ্রেষ্ঠ আকর্ষণ নয়, সেখানে আল্লাহর নেয়ামত রাজিসমূহ সর্বশ্রেষ্ঠ আকর্ষণ নয়, সেখানে তার চেয়েও সর্বশ্রেষ্ঠ হলো আল্লাহ রাব্বুল আলামিন এর জান্নাতবাসিদের সাথে জান্নাতের বাজারে সাক্ষাৎ করবেন সুবাহানাল্লাহ।

আল্লাহ রাব্বুল আলামীন তাঁর পর্দা সরিয়ে সরাসরি নিজের পূর্ণরূপ নিয়ে বান্ধার সামনে প্রকাশিত হবেন। হাদিস রয়েছে আল্লাহপাক সর্বপ্রথম দেখে বান্দা 40 বছরের জন্য অজ্ঞান হয়ে যাবে। আনন্দে উৎফুল্ল হয়ে তারা বেহুশ হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলবে। হযরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু আরো বলেন আমি বললাম হে আল্লাহর রাসূল সাল্লাহু সাল্লাম আমরা কি তোমাদের প্রতিপালকের দর্শন পাবো। তিনি বললেন হে সূর্য পূর্ণিমার চাঁদ দেখতে তোমাদের কি কোনো অসুবিধা হয়।

আমরা বললাম না ইয়া রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু সাল্লাম। তখন তিনি বললেন তেমনিভাবে তোমাদের প্রতিপালকের সাক্ষাতেও তোমাদের কোনো অসুবিধা থাকবে না। ওই মজলিসে এমন কোন ব্যক্তি অবশিষ্ট থাকবে না যার সঙ্গে আল্লাহ সুবহানাতায়ালার কথা হবেনা। সেখান থেকে জান্নাতিরা জান্নাতের বাজারে আসবে ফেরেশতার তা ঘিরে রাখবেন তাতে এমন সব জিনিস থাকবে যা কোন চোখ কোনদিন দেখেনি যা কোন গান কোন দিন শুনে নাই,কোন হৃদয় কখনো কল্পনাও করেনি,

সেখানে কোনো কিছুর বেচাকেনা হবে না এই বাজারের জান্নাতীদের পরস্পর সাক্ষাৎ হবে জান্নাতিরা তিনি নিজ নিজ অবস্থানে ফিরে আসার পর স্ত্রীরা এসে অভ্যর্থনা জানাবে! বলবে স্বাগতম স্বাগতম ও শুভেচ্ছা আমাদের নিকট থেকে যখন গিয়েছিলেন তখনকার তুলনায় এখন আপনারা আরো বেশি সুন্দর হয়ে ফিরে এসেছেন। তখন জান্নাতি পুরুষেরা বলবে আমরা তো আজ মহা পরাক্রমশালী আমাদের প্রভুর মজলিসে বসে এসেছি। আল্লাহু আকবার।

দ্বীনদার মুত্তাকী ভাইদের সাথে আল্লাহ রাব্বুল আলামীন জান্নাতীদের বাজারে যেন আমাদের প্রত্যেককে সাক্ষাৎ করে দেন। আমরা যেন এই দুনিয়ার থেকে এমন আমল করে যেতে পারি এবং প্রিয় কালেমা লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ (সাঃ) প্রতি নিয়ত যেনো অন্তরে ঠাই দেই। মৃত্যুর সময় যেন আল্লাহ রাব্বুল আলামিন এই কালেমার সাথে কবুল করে নেন এবং একজন জান্নাতের বাসিন্দা করে পরস্পরকে জান্নাতের বাজারে মিলিত হওয়ার তৌফিক দান করেন আমিন।

আপনার ওয়েবসাইটের জন্য আর্টিকেল প্রয়োজন হলে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন ফেসবুকে আমি

ভালো লাগলে আমার সাইটের পোস্ট গুলি দেখে আসতে পারেন এখানে আমি প্রতিদিন নতুন নতুন আপডেট দিয়ে থাকি আজকের আপডেট
link:

ওয়েবসাইটের লোডিং টাইম বেড়ে যাই কেনো? এবং কিভাবে লোডিং টাইম কমাবেন বিস্তারিত


The post শুক্রবার জান্নাতে বাজার বসে!! প্রধান আকর্ষণ কি….? জানতে চাইলে আর্টিকেলটি সম্পন্ন পড়ুন। appeared first on Trickbd.com.

Source:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *