HomeAll Post৫টি প্রফেশনাল ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার, যে গুলো আমি ডেলি ইউজ করি।
Advertice Space with sell

Contact With facebook

৫টি প্রফেশনাল ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার, যে গুলো আমি ডেলি ইউজ করি।

কম্পিউটারে প্রফেশনাল লেভেলের ভিডিও এডিটিং এর জন্য আমরা ফিলমোরা ক্যামটেসিয়া ইত্যাদি এ ধরনের অ্যাডভান্স লেভেলের ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার ব্যবহার করে থাকি।
হ্যালো বন্ধুরা আমি হৃদয় কথা বলছি ট্রিক বিডি থেকে এই পোস্ট থেকে আমি আপনাদেরকে পাঁচটি ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যারের কথা বলব শুধুমাত্র এন্ড্রয়েড এর জন্য।

যে অ্যাপ গুলো ব্যবহার করে আপনি আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে একেবারেই প্রফেশনাল লেভেলের ভিডিও এডিটিং করতে পারবেন।
তো চলুন দেখে আসি পাঁচটি অ্যাপের মধ্যে কোন কোন অ্যাপগুলি আমি রেখেছি এবং কোনটা দিয়ে কি ধরনের ভিডিও এডিটিং করার জন্য বেস্ট হবে।

১। ফিলমরাগো

ফিলমরাগো সাধারণত আপনি ব্লগ ভিডিও এডিটিং এর জন্য ব্যবহার করতে পারেন, যারা ইউটিউবে ব্লক ভিডিওর উপর কাজ করতে চাচ্ছেন তারা এই অ্যাপটি দিয়ে খুব সুন্দর ভাবে ভিডিওগুলি এডিট করতে পারেন।

তো অ্যাপটির মধ্য থেকে ফিচারস গুলো জেনে নেয়া যাক।

অ্যাপটি তে পাচ্ছেন আপনি অসাধারণ সব ইফেক্ট এবং ফিল্টার যে ফিল্টার গুলো আপনার ভিডিও ফুটেজ কে প্রফেশনাল লেভেল এ নিয়ে যাবে!

তারপর অ্যাপটিতে আপনি পাচ্ছেন অসাধারণ সব ফ্রি মিউজিক যে মিউজিক গুলো আপনি চাইলে আপনার ভিডিও ফুটেজ গুলোতে ব্যবহার করতে পারেন একদম ফ্রিতে!

মোশন গ্রাফিক্স ইফেক্ট যে ইফেক্ট গুলো আপনি আপনার ভিডিওগুলোর এনিমেশন অন্যরকমভাবে তৈরি করতে পারবেন।

তাছাড়া এই অ্যাপটিতে আপনি পাবেন অসাধারণ সব থিমস যেগুলো চাইলেই আপনি ব্যবহার করতে পারেন আপনার ভিডিওর ক্যাটাগরি অনুযায়ী।


তো এখনই ডাউনলোড করে ফেলুন ফিলমোরা গো আর জানিয়ে দিন অ্যাপটি আপনার কাছে কেমন লাগলো ডাউনলোড লিংক https://play.google.com/store/apps/details?id=com.wondershare.vlogit

২। কাইনমাস্টার

আমি একথাটি বলতেই পারি যে কাইনমাস্টার অ্যাপ এর মাধ্যমে আপনি আপনার ভিডিও এডিটিং এর ৮০ থেকে ৯০ পারসেন্ট কাজ কমপ্লিট করে ফেলতে পারেন।
একেবারে প্রফেশনাল লেভেলের ভিডিও এডিটিং করতে পারবেন আপনি এই অ্যাপ ব্যবহার করে, এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি চাইলে মিউজিক ভিডিও শর্ট ফিল্ম ইউটিউবে আপলোড করার জন্য যেকোনো ধরনের ভিডিও এডিটিং করতে পারবেন।

অ্যাপটির ফিচারগুলো দেখে নেয়া যাক।

আপনি যদি মনে করেন ভিডিও এডিটিং এর জন্য শুধুমাত্র কম্পিউটার প্রয়োজন তাহলে এই অ্যাপটি আপনার এতদিনে ধারণাকে সম্পূর্ণ বদলে দিবে। কারণ মোবাইল ফোন ব্যবহার করেই আপনি এই অ্যাপটির মাধ্যমে প্রফেশনাল লেভেলের ভিডিও এডিটিং করতে পারবেন।

অডিও এডিটিং কালার রেন্ডারিং ক্রোমা কি মাল্টি লেয়ার সবধরনের সব ধরনের অপশন পাবেন এই অ্যাপের মধ্যে।

বিগিনার এবং প্রফেশনাল সব ধরনের ভিডিও এডিটর এর জন্য এই অ্যাপটি অলওয়েজ বেস্ট।




তাহলে এখনি ডাউনলোড করে ফেলুন কাইনমাস্টার আর জানিয়ে ফেলুন কেমন লাগলো। ডাউনলোড লিংক।https://play.google.com/store/apps/details?id=com.nexstreaming.app.kinemasterfree

৩। ভিডিও শো

এই এডিটিং অ্যাপ এর মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন ধরনের উইশ ভিডিও তৈরি করতে পারবেন যেমন বার্থডে হ্যাপি নিউ ইয়ার ইত্যাদি।
তাছাড়া আপনি অ্যাপের মাধ্যমেই সুন্দর সুন্দর পিকচার দিয়ে স্লাইড শো ভিডিও তৈরি করতে পারবেন।

একনজরে অ্যাপটির ফিচার গুলো দেখে নেয়া যাক।

আপনি যদি স্লাইডশো মেকিং ভিডিও তৈরি করার জন্য পাগল হয়ে থাকেন তাহলে এই অ্যাপটি শুধুমাত্র আপনার জন্য, শুধুমাত্র স্লাইট শো না আপনি আপনার ভিডিওতে ব্যবহার করতে পারবেন অসাধারণ সব ফিল্টার এবং অসাধারণ সব ইফেক্ট।
যে ইফেক্টগুলো আপনার ভিডিওকে আরো একটু কোয়ালিটি সম্পন্ন করবে।

তাছাড়া অ্যাপটিতে পাচ্ছেন অসাধারণ সব ফ্রি মিউজিক যেগুলো চাইলেই আপনি আপনার ভিডিওর ব্রাক গ্রাউন্ডে ইউজ করতে পারেন।

তো চাইলে এই অ্যাপটি ডাউনলোড করে একবার ট্রাই করতে পারেন ভালো লাগবে ডাউনলোড লিংক! https://play.google.com/store/apps/details?id=com.xvideostudio.videoeditor

৪। এডোবি ক্লিপ

এই সফটওয়্যারটি ব্যাবহার করে যে একেবারে প্রফেশনাল লেভেলের কাজ গুলো কমপ্লিট করা যায় তা নিয়ে আমাদের কোনো সন্দেহ নেই।
এডোবি ক্লিপ এর মাধ্যমে আপনি মূলত ট্রাভেলস ভিডিওগুলো খুব সুন্দর ভাবে এডিট করতে পারেন,
তাই আপনি যদি ট্রাভেলিং ভিডিও করতে চান এবং ইউটিউবে ট্রাভেলিং ভিডিও নিয়ে কাজ করার চিন্তাভাবনা করছেন তাহলে আপনি এই এডোবি ক্লিপ অ্যাপটি ইউজ করতে পারেন।

এক নজরে চলুন দেখে আসি অ্যাপটি ফিচার গুলো।

যদিও এই অ্যাপটিতে আপনি মাল্টি লেয়ার এর কাজ গুলো কমপ্লিট করতে পারবেন না তারপরও আপনি পাবেন অটোমেটিক ট্রানজেকশন এফেক্টস।
যে ইফেক্টস গুলো আপনার ফুটেজটি এড করার সঙ্গে সঙ্গে আপনার ভিডিওতে এড হয়ে যাবে এবং এবং আপনার ভিডিওটি একটু অন্যরকম মোশন গ্রাফিক্স ইফেক্ট অ্যাড করবে যেটা আপনার ভিডিওটি অটোমেটিকলি লেয়ার পরিবর্তন শুরু করবে।

তাছাড়া অ্যাপটিতে ইডিট করা ভিডিও প্রজেক্টে আপনি পুনরায় আপনার কম্পিউটারে প্রিমিয়াম প্রো দ্বারা এডিট করতে পারবেন।
অ্যাপটি ডাউনলোড করার লিংক! https://play.google.com/store/apps/details?id=com.adobe.lrmobile

৫। পাওয়ার ডিরেক্টর

ভিডিও এডিটিং এর এমন কোন কাজ নেই যে এই পাওয়ার ডিরেক্টর দিয়ে দিয়ে করা সম্ভব না, আপনি চাইলেই প্রফেশনাল মানের সব ধরনের ভিডিও এই অ্যাপের মাধ্যমে এডিট করতে পারবেন,
এবং এই অ্যাপটিতে এমন কিছু ফিচার এবং অপশন আছে যেগুলো ব্যবহার করলে আপনি বলতেন বাধ্য হবেন যে হ্যাঁ আপনি মোবাইলে এডিটিং করার জন্য একটি অসাধারন সফটওয়্যার পেয়েছেন।

তো এই অ্যাপটির ফিচারগুলো এক নজরে দেখে নিই চলুন।

মূলত কাইনমাস্টার এবং পাওয়ার ডিরেক্টর এই দুটি অ্যাপের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই পাওয়ার ডিরেক্টর অ্যাপটিতে পারবেন না এমন কোন কাজ নাই বললেই চলে।

আপনি আপনার ভিডিওতে ট্রানজেকশন ইফেক্টস মোশন ইফেক্ট গ্রাফিক্স টাইটেল ট্রানজেকশন টাইটেল কাস্টমাইজেশন সোলো মোশন মাল্টি লেয়ার ক্রোমা কি অডিও এডিটিং সহ সবধরনের অপশন আপনি এই অ্যাপটির মধ্যে পাবেন।

তাই আপনি প্রফেশনাল মানের ভিডিও এডিটিং করার জন্য অবশ্যই একদিন একবার হলেও ট্রাই করবেন ডাউনলোড লিংক দেয়া হল এখানে।https://play.google.com/store/apps/details?id=com.cyberlink.powerdirector.DRA140225_01

গুগল গিফট কার্ড কিনুন বিকাশ দিয়ে! Facebook/Bltrick

তো এই ছিল আজকের পোস্ট কেমন লাগলো তা জানিয়ে দিবেন কমেন্ট বক্সে!
দেখা হচ্ছে পরবর্তী কোন পোষ্টে ততক্ষণ পর্যন্ত অনেক অনেক শুভকামনা সবাই ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

The post ৫টি প্রফেশনাল ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার, যে গুলো আমি ডেলি ইউজ করি। appeared first on Trickbd.com.

Source:

About Author (1831)

This author may not interusted to share anything with others

Leave a Reply

Related Posts

Switch To Desktop Version