Income কত প্রকার আপনি জানেন কি ? [Business Idea – 2 ]

Posted on

Income এই ব্যাপারটা নিয়ে আজকে আমরা আলোচনা করবো। কারন ইনকাম কত প্রকার এটাই যদি না জানেন আর্নিং কিভাবে করবেন তাই না?

Income এর প্রকারভেদ সবাই বলে থাকে ২ ক্যাটাগরীর হয়ে থাকে। 

তবে আমি আপনাদের ৩ টি ক্যাটাগরীর সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে যাচ্ছি ।
তবে তার আগে যারা প্রথম পর্ব দেখেন নিন তারা প্রথম পর্ব দেখার পর ২য় পর্ব পড়ূন।
 
এটা জেনে কি আপনি অবাক হচ্ছেন যে তিনটি ক্যাটাগরী রয়েছে ? দুর্ভাগ্যবশত, অনেকেই জানেন না।
সৌভাগ্যবশত, আপনি আজ ৩টি ভিন্ন ধরনের আয়ের মাধ্যম সম্পর্কে  জানতে পারবেন। 
 


Income এর প্রধান যে ক্যাটাগরী রয়েছে তা হলোঃ-

  1. Active Income
  2. Passive Income
  3. Portfolio income


Active Income:-

কাজের বিনিময়ে আপনি যে অর্থ আয় করে থাকেন তাকে এক্টিভ ইনকাম বলা হয়। 
এর মধ্যে রয়েছে মজুরি, টিপস, বেতন, কমিশন এবং  ব্যবসার প্রোডাক্ট বিক্রয় থেকে আয়।
ধরে নিন আপনি চাকুরী করছেন আর  মাস শেষে বেতন পাচ্ছেন এটা হলো এক্টিভ ইনকাম কারন আপনার যদি চাকুরী না থাকে সেক্ষেত্রে আপনার উপার্জন বন্ধ থাকবে।
আর এটাই হলো সহজে এক্টিভ ইনকাম।
 


Passive Income:-

শারীরিক ভাবে উপস্তিত না থাকলেও যে মাধ্যম গুলো থেকে উপার্জন আসা বন্ধ হবে না সেটাই হলো  Passive ইনকাম ।
রিয়েল এস্টেট/সম্পত্তি থেকে প্রাপ্ত হয়, অন্য ধরনের প্যাসিভ আয় যেমন লাইসেন্স চুক্তি্র  রয়্যালিটি থেকে প্রাপ্ত আয়।  
আচ্ছা আমি একটা ছোট উদাহরন দিচ্ছিঃ-
ধরে নিন আপনি একটি এফিলিয়েট ওয়েবসাইট বানিয়েছেন  এবং সেখানে আপনি বিভিন্ন প্রোডাক্ট কিংবা সার্ভিসের রিভিউ লিখলেন আর সেখানে আপনার এফিলিয়েট লিংক যুক্ত করে দিলেন ব্যস হয়ে গেলো।
এবার যেই আপনার এফিলিয়েট লিংক ব্যবহার করে কিছু ক্রয় করবে আপনি তার জন্য কমিশন পেতে থাকবেন।
 
কি উদাহরন ভালো লাগেনি আচ্ছা ট্রাই নেক্সটঃ-
ধরে নিন আপনি একটি বই লিখলেন এবং যে কোন প্রকাশনীর মাধ্যমে সেটা পাবলিশ করলেন তাহলে কি হবে আপনি নিশ্চই জানেন যদি না জানেন তবে জেনে রাখুন প্রতি কপি বই বিক্রয় হলে সেখান থেকে বইয়ের লেখক একটা অংশ পেতে থাকবে যতদিন বই বিক্রি হবে।


প্যাসিভ আয়ের উদাহরণঃ-

  1. ব্যাংক আমানত থেকে প্রদত্ত সুদ আয়,
  2. রিয়েল এস্টেট/সম্পত্তি থেকে ভাড়া আয়।,
  3. একটি বই লেখা থেকে রয়্যালটি,
  4. শেয়ার হোল্ডিং থেকে লভ্যাংশ।
  5. নেটওয়ার্ক মার্কেটিং থেকে আয় ।
  6. ব্যবসায়িক আয় (যেখানে মালিকের সরাসরি সম্পৃক্ততার প্রয়োজন নেই)।
 


Portfolio income:-

Portfolio income হলো মূলধনের লভ্যাংশ এবং সুদের আয়ের মতো কাগজের বিনিয়োগের ফলে আয় যা আপনি স্টক এবং বন্ডের মালিকানা থেকে পেতে পারেন। 
মোটকথা বিনিয়োগ থেকে প্রাপ্ত উপার্জন টাই হলো পোর্টফলিও ইনকাম। 
 

উদাহরন হিসাবেঃ-

  1. মূলধন লাভ,
  2. স্বার্থ,
  3. লভ্যাংশ,
  4. রয়্যালটি ইত্যাদি
 
 
তাহলে আশা করি আজকে আমরা ইনকামের ক্যাটাগরী সম্পর্কে জানতে পারলাম আস্তে আস্তে আমরা এই ক্যাটাগরীর কাজ ও শুরু করবো ইনশাআল্লাহ।
 

তাহলে আমাদের আর কোন প্রশ্ন নেই এক্টিভ ইনকাম এবং প্যাসিভ ইনকাম কিংবা পোর্টফলিও নিয়ে যদি থাকে কমেন্ট বক্সে জানাতে ভুলবেন না কিন্তু।

 
এটা আর জানানোর কি আছে সহজ কথায় কাজের বিনিময়ে প্রাপ্ত উপার্জন কে এক্টিভ ইনকাম এবং শারিরীকভাবে উপস্থিত না থাকলেও যে আয় আসে সেটা প্যাসিভ ইনকাম আর বিনিয়োগ থেকে উপার্জন আসলে সেটা পোর্টফলিও ইনকাম।
 
How To Create passive Income

তাহলে নেক্সট পর্বে দেখা হচ্ছে কিভাবে আপনিও চাইলে প্যাসিভ আয় শুরু করতে পারবেন তা নিয়ে। 

তাহলে দেখা হচ্ছে অন্য কোন দিন নতুন কিছু নিয়ে।
লেখকঃ Cyber Prince

The post Income কত প্রকার আপনি জানেন কি ? [Business Idea – 2 ] appeared first on Trickbd.com.

Source:

Leave a Reply

Your email address will not be published.